ইফতারে শসা কেন খাবেন?

155

একে তো গরম তার সঙ্গে রোজা। এই দুইয়ে মিলে এখনকার সময়ে আমাদের পছন্দের একটি খাবার হলো শসা। এটা কতটা উপকারী আপনি জানেন? চলুন দেখে নিই শসা খাওয়ার উপকারিতা-

  • শসা দেহের পানিশূন্যতা দূর করে।
  • শসার মাল্টি ভিটামিনস ও মাল্টি মিনারেলস প্রাকৃতিক ওষুধ হিসেবে কাজ করে এবং ভিটামিন ও মিনারেলসের অভাবজনিত সমস্যা থেকে রক্ষা করে।
  • দেহের ভেতর-বাইরের তাপ শোষণ করে।
  • শসার পটাশিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।
  • এর ম্যাগনেসিয়াম রক্ত চলাচল সচল করে।
  • শসার আঁশ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ এবং কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময় করে।
  • এটি মূত্রবর্ধক হিসেবে কাজ করে। শরীরের জমানো ক্ষতিকর ও বিষাক্ত উপাদানগুলো অপসারণ করে রক্তকে পরিষ্কার রাখে।
  • শসা বুক জ্বলা, পাকস্থলীর এসিডিটি এমনকি গ্যাস্ট্রিক থেকে মুক্তি দিতে পারে।
  • শসাতে পানি আছে শতকরা ৯৫ভাগ। এটি শরীরের আর্দ্রতা ধরে রাখে এবং শরীরের ভেতরের তাপমাত্রাকে নিয়ন্ত্রণ করে। শরীর শীতল রাখতে সহায়তা করে।
  • সৌন্দর্য চর্চায়ও আপনার সঙ্গী হতে পারে শসা। ত্বকের নানাবিধ সমস্যা, চোখের চারপাশের ফোলাভাবসহ ত্বকের সকল প্রকার ক্লান্তি দূর করে ত্বককে প্রাণবন্ত করে তুলতে শসার ভূমিকা কম নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here